একটি মৃত্যু এবং মন্ট্রিয়ল কমিউনিটি
নাজিয়া হোসেন , শনিবার, ফেব্রুয়ারি ০২, ২০১৩


যা কেউ কখনও শোনে নি তা সবাই শুনলো। যা কেউ কখনও দেখে নি তা সবাই দেখলো। আমাদের সকলের প্রিয় ভুলু ভাইকে মারা যাবার আগেই মেরে ফেলা হলো। তারপরও আমরা সবাই যখন জানলাম খবরটা সত্য নয় তখন আল্লাহ পাকের কাছে হাত তুলো দোয়া চেয়েছি যেন তিনি আবারও আমাদের মাঝে ফিরে আসেন। কিন্তু ফেরা তার হলো না প্রিয় স্ত্রী , দু’সন্তান আর আমাদের কাছে। আল্লাহ তাকে বেহশত নসীব করুন। আমাদের এক সাংবাদিক ভাই সম্প্রতি তার লেখায় অনুরোধ করেছেন ভুলু ভাইয়ের ব্যাপারে আর যেন কিছু লেখা না হয়। আমি যতদূর জানি এবং তার স্ত্রীর কথাও একই। তিনি চান তার স্বামী এবং তার দু’সন্তানকে নিয়ে যেন আর কোন কিছু লেখা না হয়। তারা এই দুঃখের মাঝে আরও বেশী কষ্ট পেতে চান না। আমিও চাই ওনার ব্যাপারে এটাই যেন শেষ লেখা হয়। আমি এতদিন ধরে অনেক পত্রিকায় নানান খবর দেখছি। কাঁদা ছোড়াছুড়িও কম হয়নি। জলও মনে হয় অনেক বেশী ঘোলা হয়ে গেছে। এসব আমার লেখার বিষয় নয়। আমার লেখার বিষয় হলো ভুলু ভাইয়ের জন্য সংগৃহীত উদ্বৃত অর্থ দিয়ে ফিউনেরাল ফান্ড তৈরীর খবরটা নিয়ে। ভুলু ভাই তখনও মারা যাননি তারই মধ্যে মন্ট্রিয়লের কিছু অতি উৎসাহী ব্যাক্তি অতি উৎসাহ নিয়ে টাকা পয়সা তোলা শুরু করে “ ফেললো তার স্ত্রীর অনুমতি ছাড়াই। সেটা বন্ধ হলেও তার মৃত্যুর পর আবারও অর্থ সংগ্রহ শুরু“ হলো। এবার পরিচিত, অপরিচিতসহ তার বন্ধু-বান্ধব এবং শুভাকাংখীসহ সকলেই এগিয়ে এলো। ভুলু ভাইয়ের বন্ধুরা এবং শুভাকাংখীসহ চাইলো তার দাফনের পর তার স্ত্রীর হাতে যেন উদ্বৃত অর্থটা দেয়া হয়। যাতে করে এই দুঃসময়ে তার স্ত্রীকে ছোট ছোট দু’টি ছেলেমেয়েকে নিয়ে বিপদে পড়তে না হয়। ফিউনারেল ফান্ড হোক এটা আমরা সকলেই চাই। কিন্তু এই টাকা দিয়ে কেন? এ্টাতো দেওয়া হয়েছিলো ভুলু ভাইকে উদ্দেশ্য করেই। এটা না হয় তার দু’ছেলের জন্যইে তোলা থাক। ফিউনারেল ফান্ড করতে চাইলে মন্ট্রিয়লের আমরা না হয় আবারও সকলে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিব। সকলে সামান্য কিছু করে দিলেও সেটা আস্তে— আস্তে—হয়ে যাবে। কিন্তু যার উদ্দেশ্যে তার কাছের মানুষগুলো হাত বাড়িয়েছিলো তাদের মতামত নেওয়া হোক তারা কি চায়। আমারতো মনে হয় যারা অর্থ সংগ্রহ করেছে তাদের কাছে সমস্ত—তথ্যই আছে। কারা কারা এ ব্যাপারে এগিয়ে এসেছিলো। তাদের মতামতটা নেওয়াও মনে হয় জরুরী। এটা নিশ্চয়ই মাত্র কয়েকজনের সিদ্ধান্তে— হতে পারে না। মন্ট্রিয়লে একটা ফিউনারেল ফান্ড হোক সেটা যেমন আমরা সকলেই চাই তেমনি এটাও চাই ঠিক এই মূহূর্তে একজন অসহায় নারীকে বিরক্ত না করে তার পাশে দাঁড়াতে।

- নাজিয়া হোসেন (মন্ট্রিয়ল) তারিখ- ১লা ফেব্র“য়ারী, ২০১৩