যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের দাবীতে মন্ট্রিয়লের বিভিন্ন সংগঠনসমূহের প্রতিনিধিদের বৈঠক
এইদেশ ডেস্ক-, সোমবার, মার্চ ১১, ২০১৩


মন্ট্রিয়লে গণজাগরণ মঞ্চ প্রতিষ্ঠার উদ্যোগ |
যুদ্ধাপরাধীদের সর্বোচ্চ শাস্তি দাবী ও গণজাগরন মঞ্চের আন্দোলনের সাথে একাত্মতা প্রকাশ ও সম্মিলিতভাবে পরবর্তি কর্মপন্থা গ্রহণের উদ্দেশ্যে ভয়েস ফর একাউন্ট্যাবিলিটি এন্ড গুড গুভার্নেন্স ইন বাংলাদেশ - ভিএজি,বি গত রোববার (১০ মার্চ) বিকেলে মন্ট্রিয়লের ৬৯৭-৬৭৬৭ কোট দেজ নেইজ এ স্বাধীনতার স্বপক্ষ শক্তি সমূহের প্রতিনিধিদের সমন্বয়ে এক মতবিনিময় সভার আয়োজন করে। ভিএজি,বি আহবায়ক শাহ মোস্তাইন বিল্লাহর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এই সভায় উপস্থিত ছিলেন কানাডা-বাংলাদেশ সলডারিটির পক্ষে সভাপতি জিয়াউল হক জিয়া, বীর মুক্তিযোদ্ধা গোলাম মহিবুর রহমান, মুক্তিযোদ্ধা ও সাবেক ছাত্রনেতা নুরুল আমীন খান, কানাডা আওয়ামী লীগের পক্ষে যুগ্ম সম্পাদক ইতরাদ জুবেরী সেলিম, উদীচী শিল্পী গোষ্ঠী কানাডার পক্ষে বাবলা দেব, জাসদের পক্ষে এবিএম ফিরোজ, মন্ট্রিয়ল প্রেস ক্লাবের পক্ষে সাংবাদিক শরীফ ইকবাল চৌধুরী ও সাংবাদিক খ ম তানভীর ইউসুফ রনী, মন্ট্রিয়ল আওয়ামী লীগের পক্ষে সভাপতি আফজাল টিটো ও সাধারণ সম্পাদক এনাম আহমেদ, বৃহত্তর চট্টগ্রাম সমিতি পক্ষে সুলতান আহমেদ, হিন্দু এসোসিয়েশন অব মন্ট্রিয়লের পক্ষে বাবু কৃষ্ণপদ সেন ও পিনাকী ভট্টাচার্য, তৈয়মুন নেছা ফাউন্ডেশনের পক্ষে চেয়ারম্যান ইয়াহিয়া আহমেদ, বাঙালি সংস্কৃতি পরিষদ এর পক্ষে সভাপতি কবি শহীদ রাহমান, ভিঙ্গুল সাংস্কৃতিক দলের পক্ষে সভাপতি হাসান জাহীদ কমল, সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি জোটের পক্ষে সামসাদুল চৌধুরী, সমাজকর্মি ও এনজিও প্রতিনিধি মোহাম্মদ দিদারুল হাসান, ডঃ শোয়েব সাঈদ, সাবেক ছাত্রনেতা মুস্তাফিজুর রহমান ফিরোজ, বীর মুক্তিযোদ্ধা ও রিয়েল স্টেট বায়বসায়ি আব্দুর রশিদ খান, মাহমুদ হাসান লাকী ও সাখাওয়াত হোসেন, সাংস্কৃতিক কর্মি লাল শরীফ ছাড়াও বিশিষ্ট ব্যক্তিদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন অধ্যাপক আবুল আলম, অধ্যাপক, আনন্দ মোহন দাস, দিলীপ কর্মকার, ডঃ মহিউদ্দিন তালুকদার, এ এফ এম মাহমুদুল হাসান, হামোম প্রমোদ সিনহা, মোঃ সাদেক আহমেদ চৌধুরী (শিবলী), সৈয়দ রহমতুল্লাহ, হেলাল উদ্দিন আহমেদ, সাইফুদ্দিন খান, সুমন সরকার, হাসান আহমেদ, আরিয়ান হক, আনোয়ার হোসেন চৌধুরী, জাহাঙ্গীর আলম, এম জসিম উদ্দীন ও মোঃ শাহাজাহান ভুঁইয়া।
সভায় সর্বসম্মতিক্রমে “মন্ট্রিয়ল গণজাগরণ মঞ্চ” স্থাপনের সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়। এছাড়াও, মন্ট্রিয়লের বাংলাদেশী কম্যুনিটির সর্বস্তরের মানুষের মাঝে এক মাস ব্যাপী “গণস্বাক্ষর অভিযান” চালানো; ফেসবুক ও অন্যান্য সোশ্যাল নেটওয়ার্কে যুদ্ধাপরাধীদের সর্বোচ্চ শাস্তির দাবীকে জোরালোভাবে উপস্থাপন করার জন্য সংগঠিত উদ্যোগ গ্রহণ করা; এবং অনতিবিলম্বে তথ্য-উপাত্তসহ বাংলাদেশের সার্বিক পরিস্থিতি বর্ণনা করে একটি সুলিখিত স্মারকলিপি কানাডা সরকার ও জাতিসংঘসহ বিভিন্ন আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থাগুলির নিকট প্রেরণ করার সিদ্দান্ত গৃহিত হয়।